হিন্দু হয়ে হিন্দুর ভিন জাতে বিয়ে, মেয়েকে খুন করতে ২০ লাখ টাকা খরচ বিধায়ক বাবা সুরেন্দ্র শর্মার!

নিউজ ডেস্ক : হিন্দু ধর্মেই বিয়ে করেছে মেয়ে, কিন্তু জাত অন্য। ভিন্‌ জাতের ছেলেকে বিয়ে করেছেন মেয়ে। তাতেই চটেছেন বাবা। নিজের গরিমা বজায় রাখতে খুন (অনার কিলিং) করার ছক কষার অভিযোগ উঠেছে বিহারের প্রাক্তন বিধায়কের বিরুদ্ধে। ভাড়াটে খুনি দিয়ে মেয়েকে হত্যার ছক কষার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ও প্রাক্তন বিধায়ক বাবাকে।

মেয়েকে খুনের জন্য ভাড়াটে খুনিদের ২০ লক্ষ টাকা দিয়েছিলেন বিহারের প্রাক্তন বিধায়ক সুরেন্দ্র শর্মা। গ্রেফতারের পর ভাড়াটে খুনিরাই সুরেন্দ্রর নাম ফাঁস করেন। তার পরই ওই প্রাক্তন বিধায়ককে পাকড়াও করেছে পুলিশ।

পটনায় পুলিশের এক শীর্ষ আধিকারিক প্রমোদ কুমার বলেছেন, ‘‘গত ১ জুলাই রাতে মেয়েকে খুনের পরিকল্পনা করেন প্রাক্তন বিধায়ক। শ্রী কৃষ্ণপুরী থানা এলাকায় থাকেন প্রাক্তন বিধায়কের কন্যা। তিনি নিজেই থানায় অভিযোগ দায়ের করেন, বাইকে করে কয়েক জন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালান। কিন্তু তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।’’

অভিযোগ পাওয়ার পরই শনিবার তল্লাশি অভিযান শুরু করে পুলিশ। দুই সহযোগী-সহ অভিষেক ওরফে ছোটে সরকার নামে এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়। জেরায় অভিষেকই পুলিশকে সুরেন্দ্রের নাম জানান। ধৃতদের থেকে তিনটি দেশি পিস্তল, সাত রাউন্ড গুলি, নম্বর প্লেটহীন বাইক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

একজন বিধায়ক, জন প্রতিনিধির মানসিকত এতো মৌলবাদী ?