রাজ্যে করোনার কামড় শুরু, আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন সামশেরগঞ্জ কংগ্রেস প্রার্থী রেজাউল!

নিউজ ডেস্ক : রাজ্যে করোনার দাপাদাপি শুরু। নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে করোনা নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকের আগেই ঘটে গেল অঘটন। রাজ্যে করোনা বাড়ছে তা সভা থেকেই বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল সামশেরগঞ্জের কংগ্রেস প্রার্থী রেজাউল হক ওরফে মন্টু বিশ্বাসের। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই জোর আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল। বুধবার রাতেই তাঁকে জঙ্গিপুর থেকে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় নিয়ে আসা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার সকালে মৃত্যু হয়েছে তাঁর।

তৃণমূল সুপ্রিমো গতকাল দাবি করেছেন, বিজেপি বাইরে থেকে লোক নিয়ে আসার জন্যই রাজ্যে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। এই মন্তব্যের ২৪ ঘন্টা কাটেনি এমন অঘটন ঘটল বাংলায়। তাও আবার করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে। দু’দিন আগে থেকে রেজাউল অসুস্থ ছিলেন বলে খবর। করোনা পরীক্ষা হয় তাঁর। বুধবার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাঁকে প্রথমে জঙ্গিপুরের বসুমতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা খারাপ হওয়ায় রেজাউলকে কলকাতায় স্থানান্তর করেন চিকিৎসকেরা। বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা নাগাদ মৃত্যু হয় তাঁর।

উল্লেখ্য, বুধবার অসুস্থ রেজাউলকে দেখতে হাসপাতালে যান জঙ্গিপুর লোকসভার তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ খলিলুর রহমান। এছাড়া বহু কংগ্রেস নেতা–নেত্রীও ছিলেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে রাজ্যে এই প্রথম কোনও প্রার্থীর মৃত্যু হল। আগামী ২৬ এপ্রিল সপ্তম দফায় সামশেরগঞ্জে ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা। তার আগেই রেজাউলের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এল রাজনীতিতে।

আমাদের দৈনিক করোনা আক্রমন দুই লাখ ছড়িয়ে। মহারাষ্ট্র, গুজরাট, মধ্য প্রদেশ, দিল্লি, উত্তর প্রদেশ করোনার ভয়াবহ অবস্থা, এই রাজ্য গুলির বিভিন্ন শহরে লাশ পুড়ানোর জায়গার সংকট । মৃত্যু হারও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।