দিল্লীতে আদালতের ভিতরে বিচার চলার সময় গুলির লড়াই, হত্যা তিন! দেশে গণতন্ত্র নাকি জঙ্গল রাজ চলছে?

নিউজ ডেস্ক : যেন সিনেমার সুটিং, গুলির লড়াই। ভরা আদালত চত্বরে মধ্যেই এলাপাথাড়ি গুলি চলল। গুলির আওয়াজেই তখন চারপাশে দৌড়াদৌড়ি শুরু হয়ে যায়। উত্তর দিল্লির রোহিণীতে আদালতকক্ষের মধ্যেই বিবাদমান দুই গ্যাংস্টার দলের গুলি লড়াই। ভরা আদালত চত্বর। তার মধ্যেই এলাপাথাড়ি গুলি চলল। গুলির আওয়াজেই তখন চারপাশে দৌড়াদৌড়ি শুরু হয়ে যায়। শুক্রবার দুপুরে গুলির লড়াইয়ে অন্তত তিন জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর। ঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েক জন। দিল্লির কুখ্যাত দুষ্কৃতী জিতেন্দ্র গোগীর মৃত্যু হয়েছে এই লড়াইয়ে। দুষ্কৃতীরা আইনজীবীদের পোশাক পরে আদালতকক্ষে প্রবেশ করেছিল।

কুখ্যাত দুষ্কৃতী গোগীর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। গত এপ্রিলে তাকে গ্রেফতার করে দিল্লি পুলিশের বিশেষ বিভাগ। দুষ্কৃতীরা আইনজীবীদের পোশাক পরেই আদালত চত্বরে ঢুকে ছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। গোগীর উপর হামলার ঘটনায় ‘টিল্লু’ দলের দুষ্কৃতীরা জড়িত বলে সন্দেহ পুলিশের। দুষ্কৃতীদের গুলি চালনার মধ্যেই পাল্টা গুলি চালিয়েছে পুলিশও। সেই গুলিতে দুষ্কৃতী দলের দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবারের এই ঘটনায় আদালত চত্বরের মধ্যে ৩৫ থেকে ৪০ রাউন্ড গুলি চলেছে। সেখানে কর্মরত এক মহিলা আইনজীবীও আহত হয়েছেন। রোহিণীর ডেপুটি পুলিশ কমিশনার প্রণব তয়াল বলেছেন, ‘‘আইনজীবীর পোশাক পরে আততায়ীরা আদালতের মধ্যেই গোগীর উপর গুলি চালায়। তার পর পুলিশও পাল্টা গুলি চালিয়েছে।’’ দিল্লির পুলিশ কমিশনার রাকেশ আস্থানা বলেছেন, ‘‘রোহিণী আলাদতে গ্যাংস্টার জিতেন্দ্র গোগীর উপর গুলি চালায় দুই দুষ্কৃতী। পুলিশের পাল্টা গুলিতে দুই আততায়ীর মৃত্যু হয়েছে।’’

দেশের রাজধানী দিল্লীর নামকরা আদালতের ভিতরে, বিচার কার্য চলার সময়, দুই দলের গ্যাংস্টাদের গুলির লড়াই দেশের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলিল। দেশের জনগণে সুরক্ষাতে ব্যর্থ বিজেপি সরকার ও প্রধানমন্ত্রী মোদি!