ভারতের মুসলিমদের উপর অত্যাচার ও ধর্মীয় স্থান রক্ষার বার্তা মোদিকে, ওআইসির

নিউজ ডেস্ক : মুসলিম দেশসমূহের সংগঠন ওআইসি সম্প্রতি এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে বলেছে, ভারতে মুসলিমদের প্রভাবিত করছে, এমন সাম্প্রতিক ঘটনাবলীর উপরে গভীরভাবে নজর রাখছে অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের জেনারেল সেক্রেটারিয়েট। নাগরিকত্বের অধিকার ও বাবরী মসজিদ মামলা উভয় ইস্যুতেই সাম্প্রতিক ঘটনাবলীতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক সংগঠনটি।

ওয়াইসি বলেছে, জাতিসঙ্ঘের সনদে উল্লিখিত নীতি, দায়বদ্ধতাগুলো তুলে ধরা ও কোনওরকম বৈষম্য ছাড়া সংখ্যালঘুদের অধিকারের গ্যারান্টি দেওয়া প্রাসঙ্গিক আন্তর্জাতিক নিয়মরীতি পালনের অসীম গুরুত্বের ওপরে জোর দিচ্ছে ওআইসি। এই নীতিসমূহ, দায়বদ্ধতার পরিপন্থী যেকোনও পদক্ষেপই আরও উত্তেজনা সৃষ্টি করতে পারে ও গোটা অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তার ওপরে মারাত্মক প্রভাব ফেলতে পারে বলেও ওয়াইসি’র এক বিবৃতিতে  হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।

ভারতে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ও আফগানিস্তান থেকে ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ধর্মীয় নির্যাতনের শিকার হয়ে এদেশে আসা হিন্দু,  বৌদ্ধ, জৈন, পার্সি শিখ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষজনকে ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে ‘ধর্মনিরপেক্ষ’ দেশে মুসলিমদের বাদ দিয়ে কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকার নির্দিষ্ট ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকত্ব দেওয়ার পদক্ষেপ গ্রহণ করায় ভারতের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক সংগঠন, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও মানবাধিকার কর্মীদের পক্ষ থেকে সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বিতর্কিত ওই আইন প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়েছেন। এনিয়ে চলমান প্রতিবাদ-বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি বিভিন্ন রাজ্যে কমপক্ষে ২০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।#