বিস্ময়কর প্রতিভার অরুণাচল বালকের! চোখ বন্ধ করেই রুবিক্‌স কিউবের রং মেলাচ্ছে কয়েক সেকেন্ডে

নিউজ ডেস্ক : রুবিক্‌স কিউবের (Rubik’s cube) রং মিলান্তির খেলা আমরা প্রত্যেকেই কমবেশি খেলেছি। কেউ সফলভাবে রং মিলিয়ে ফেলেন, আবার কেউ বারবার চেষ্টা করেও পারেন না। আসলে, রং মিলান্তির খেলায় সাফল্যের চাবিকাঠিই হল চোখ আর মস্তিষ্কের মেলবন্ধন। যাদের এই মেলবন্ধন ভাল বা যাঁরা বেশি করে অনুশীলন করেন, তাঁরা সহজেই রুবিক্‌স কিউবের এলোমলো ঘরগুলিকে একদিকে এনে এক রঙে রাঙিয়ে দিতে পারেন। চোখ ছাড়া রং মেলানোর এই খেলার কথা ভাবাই যায় না। কিন্তু, অভাবনীয় এই কাণ্ডটিই ঘটিয়ে ফেলেছে অরুণাচলের এই বালক। আর তাকে নিয়েই আত্মহারা নেটদুনিয়া।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি টুইট করেছেন ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের এক কর্মী। তাঁর নাম প্রবীণ কাসওয়ান। নেটিজেনদের মধ্যে প্রবীণ একটি পরিচিত নাম। এর আগেও একাধিক আশ্চর্যজনক ভিডিও তিনি শেয়ার করেছেন। তবে, গত ২১ ডিসেম্বর তাঁর পোস্ট করা এই ভিডিওটি ‘স্পেশাল’। কারণ, ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, অরুণাচলের প্রত্যন্ত এক গ্রামের এক বালক মাত্র কয়েক সেকেন্ডে রুবিক্‌স কিউবের ধাঁধা সমাধান করে ফেলছে। তাও আবার চোখ বন্ধ করে। যা একপ্রকার অভাবনীয়।

প্রবীণ পোস্টটির সঙ্গে যে তথ্য দিয়েছেন, সেই তথ্য অনুযায়ী ছেলেটির নাম চিন্তা। সে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে। প্রবীণ জানিয়েছেন, এই ভিডিওটি তাঁকে অন্য কেউ পাঠিয়েছে। ভাল লাগায় তিনি এটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, চিন্তা নামের ওই বালক প্রথমে রুবিক্‌স কিউবটিকে ভালভাবে দেখে নেয়। কোথায় কোন রং আছে মনে রাখার চেষ্টা করে। তারপর চোখ বন্ধ করে সেটিকে ঘোরাতে থাকে। কয়েক সেকেন্ড পরেই ম্যাজিক। সব রং যথাযথভাবে মিলে যায়। ভিডিওটি দেখে নেটিজেনরা ধন্য ধন্য করছে। ইতিমধ্যেই কয়েক হাজার বার রিটুইট করা হয়েছে ভিডিওটি।