শিয়ালদহ স্টেশনে মাল্টিপ্লেক্স-শপিংমলের অনুমোদন, ধীরে ধীরে রেল বেসরকারি কারণের দিকে !

নিউজ ডেস্ক : টাকার টানাটানি সামলাতে এবার রেল শিয়ালদহ স্টেশন চত্বরে শপিং মল ও সিনেমা হল করার অনুমতি দিল। রেলের সম্পত্তি বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার জন্য একের পর এক যে পদক্ষেপ হচ্ছে এটি তার অন্যতম। বড় মাল্টিপ্লেক্স চেনকে সিনেমা হল বানানোর দ্বায়িত্ব দেওয়া হবে। সেই মাল্টিপ্লেক্স বানাতে শিয়ালদহ স্টেশনের দ্বিতলের একটি অংশ ছাড়া হচ্ছে বলে খবর। একতলায় হবে শপিং মল। শহরের আর পাঁচটি মলের মতো যেখানে থাকবে সমস্ত বড় ব্র‌্যান্ডের আউটলেট।

রেল সূত্রে খবর, আগামী ছ’মাসের মধ্যেই শিয়ালদহ স্টেশনে শপিং মলের পাশাপাশি তৈরি হবে মাল্টিপ্লেক্সও। এজন্য গ্রাউন্ড ও ফার্স্ট ফ্লোর বেসরকারি সংস্থার হাতে দিয়ে দেওয়া হচ্ছে। খসড়া পরিকল্পনা তৈরি। আজ, বড়দিনেই খোলা দরপত্র ডেকে পরিকল্পিত এই কাজের দায়িত্ব দেওয়া হবে কোনও সংস্থাকে। আগামী ছ’মাসের মধ্যেই কাজ শেষ করার চুক্তিতে দেওয়া হবে ঠিকা। এই প্রকল্প থেকে রেলের আয় হবে সাত কোটি টাকা। প্রকল্পের জন্য খরচ হবে প্রায় পনেরো কোটি।

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক নিখিল চক্রবর্তী জানান, যাত্রীদের প্রয়োজনে এই পরিকল্পনা নিয়েছে রেল। কলকাতার একেবারে মধ্যস্থলে এই মল গড়ে উঠলে বহু ক্রেতার আগমনও ঘটবে স্টেশনে। ফলে কলেবর বৃদ্ধি পাবে। পরিকল্পিত বিষয়গুলির মধ্যে রয়েছে, গ্রাউন্ড ফ্লোরে হবে শপিং মল। যেখানে মিলবে একেবারে ব্র্যান্ডেড কোম্পানির জামা-কাপড় থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী, স্টিলের ব্যবহার্য সামগ্রী থেকে ব্যাগ, আসবাব, খাবার ইত্যাদি। থাকবে মেডিসিন সেন্টার, ফুডকোর্ট, ছোটদের বিনোদন কেন্দ্র এবং মাল্টিপ্লেক্স। শিয়ালদহ ডিভিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, আর্থিক সঙ্গতিপূর্ণ সংস্থার হাতে এই ফ্যামিলি মার্টের দায়িত্ব দেওয়া হবে। পরিকাঠামো গঠনের সব দায়িত্ব সংস্থাটিকেই নিতে হবে। রেল কিছু বিষয় নিজেদের দায়িত্বে করবে যার মধ্যে রয়েছে এসক্যালেটর তৈরি। প্রবেশ ও বেরনোর জন্য এসক্যালেটর তৈরি করবে রেল।